একজন ফ্রিল্যান্সারের অভিজ্ঞতায় ফ্রিপিকে ডিজাইন রিজেকশানের কারণ ও সাবধানতা

ফ্রিপিকে ডিজাইন রিজেকশানের কারণ ও সাবধানতা

যারা বিভিন্ন মাইক্রোস্টক সাইটে ডিজাইন নিয়ে কাজ করেন বিশেষ করে যারা গ্রাফিক-রিভারে চেষ্টা করেন তাদের কাছে অনেক ডিজাইন জমা আছে যা দিয়ে আপনারা ফ্রি-প্রিকে কাজ শুরু করতে পারেন। কারণ অনেক রিজেক্টড ডিজাইন আপনাদের জমা আছে সেগুলো ট্রাই করতে পারেন খুব সহজেই। তবে হ্যাঁ সেক্ষেত্রে আপনার ডিজাইন অবশ্যই মার্কেটপ্লেস স্ট্যান্ডার্ড হতে হবে, তা না হলে আপনার ডিজাইন রিজেক্ট হবে। আসুন জেনে নেওয়া যাক ফ্রি-পিকে যে সকল কারণে ডিজাইন রিজেক্ট করে (নতুনরা অবশ্যই ভালোভাবে কাজ শিখে তারপর চেষ্টা করবেন)


১। লেয়ার ভালোভাবে অর্গানাইজ করবেন, সেই সাথে বানানের দিকে খুব গুরুত্ব দিবেন। লেয়ারে এবং ডিজাইনে বানান ভুল করলে আপনার ডিজাইন “Language wrongly used” ইস্যুতে রিজেক্ট হবে।


২। অবশ্যই চেষ্টা করবেন ফ্রি-স্টক ফটো ব্যবহার করার জন্য, কোনো পেইড ফটো ব্যবহার করলে (যদি সেই ফটো কর্মাশিয়াল ইউজের পারমিশান না থাকে) তাহলে আপনার ডিজাইন “Trademark/Copyright” ইস্যুতে রিজেক্ট হবে। অবশ্যই গুগল সার্চের মাধ্যমে কোনো ইমেজ ডিজাইনে ব্যবহার করবেন না। ফ্রি ফটোর জন্য unsplash, pexels, shopify ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পারেন। আবার unsplash বা অন্যান্য ফ্রি সাইট থেকে ব্যবহার করা ইমেজেও “Trademark/Copyright” ইস্যু ধরতে পারে যদি সেই ইমেজে কোন নির্দিষ্ট ব্রান্ড আইডেনটিটি থাকে। যেমন: আপনি একটি ইমেজ ব্যবহার করেছেন একটা অফিসের। আর সেই অফিসে এ্যাপলের একটি কম্পিউটার আছে যেটার কারণে অ্যাপলের লোগো ইমেজে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। তাহলেও আপনার ডিজাইন “Trademark/Copyright” ইস্যুতে রিজেক্ট হবে।


৩। অবশ্যই ইমেজের জন্য প্লেসহোল্ডার সঠিকভাবে ইউজ করবেন, অর্থ্যাৎ স্মার্টঅবজেক্ট হিসেবে সঠিকভাবে প্লেসহোল্ডার বানাবেন, এবং সেইসাথে চেষ্টা করবেন ইমেজের জন্য ব্যবহারকৃত এরিয়া ডিজাইনে ইমেজ যতটুকু দৃশ্যমান ততোটুকু ব্যবহার করার। তা না হলে আপনার ডিজাইন “Composition” ইস্যুতে রিজেক্ট হবে। কম্পোজিশান রিজেক্টের আরো কারণ আছে ……


৪। যদি আপনার ডিজাইন “Aesthetic and technical issues” ইস্যুতে রিজেক্ট হয়, তাহলে সেই ডিজাইন মার্কেটপ্লেস উপযোগী ডিজাইন না। তাই সেটা ২য় বার সাবমিট করবেন না, যতোক্ষণ না সেটাকে প্রফেশনাল ডিজাইনে পরিণত করতে পারছেন। Aesthetic and technical issues এর কারণ অনেক বড়।
সব দিক বিচার করে আপনার এই ডিজাইন প্রফেশনাল না অথবা মার্কেটপ্লেস উপযোগী না। ডিজাইন প্রফেশনাল না হবার কারণগুলোর মধ্যে পড়ে…. আপনার ডিজাইনে কালার প্রবলেম থাকতে পারে, ডিজাইনে কম্পোজিশনের প্রবলেম থাকতে পারে, ট্রাইপোগ্রাফিতে প্রবলেম থাকতে পারে, লেয়ার অর্গানাইজেশনে সমস্যা থাকতে পারে…….আরো অনেক কিছু।
আবার ডিজাইন মার্কেটপ্লেস উপযোগী না বলতে আপনার যে ডিজাইন করেছেন সেটার মার্কেটে আপাতত চাহিদা নেই।


৫। ডিজাইনে অবশ্যই ফ্রি-ফন্ট ব্যবহার করবেন এবং কনটেন্ট প্রোপার এলাইনমেন্ট করবেন। বিশেষকরে যখন টেক্সট কোনো বক্সের মধ্যে নিয়ে লেখবেন তখন ভালোকরে লক্ষ্য রাখবেন বক্স যেন টেক্সেটের এরিয়া থেকে বড় না হয় / বক্সের এরিয়া অন্য কোনো লেখার মধ্যে না চলে যায় / বক্সের এরিয়া সেফ এরিয়ার বাহিরে না চলে যায় ইত্যাদি। চেষ্টা করবেন ডিজাইনে কোনো নির্দিষ্ট অংশের চারিদিকে সমান গ্যাপ রাখতে। সেই সাথে টেক্সট এর সিক্যুয়েন্স বজায় রাখবেন, অর্থ্যাৎ কনটেন্টের কোন অংশের পর কোনটা হবে, কোনটার পর কোনটা হাইলাইট হবে এই বিষয়গুলো। তা না হলে আপনার ডিজাইন “Typography wrongly used” ইস্যুতে রিজেক্ট হবে।


৬। আইকোন ও ইমেজ ব্যহার করলে সঠিকভাবে ব্যবহার করবেন, চেষ্টা করবেন ফন্ট অসাম থেকে আইকন ও ফ্রি সাইট থেকে ফটো ব্যবহার করতে। সঠিকভাবে বলতে অথরকে ক্রেডিট দিতে হবে না হলে আপনার ডিজাইন “Do not Attribute” এই ইস্যুতে রিজেক্ট হবে। ক্রেডিট দেওয়ার পদ্ধত্তি খুব সহজ। আপনারা যখন ফ্লাট আইকন থেকে আইকন বা ফ্রিপিক থেকে ইমেজ ডাউনলোড করেন তখন দেখবেন একটা পপআপ মেসেজে তারা অথরকে ক্রেডিট দেওয়ার জন্য How to Attribute on web এবং নীচে ডানদিকে দেখবেন How to Attribute on print item লিখা থাকে। এখান থেকে প্রসেসটা দেখে নিবেন। (ফ্লাট আইকনের জন্য সচরাচর ক্রেডিট না দিলেও সমস্যা করে না)


৭। ডিজাইনের প্রিভিউ ইমেজে অবশ্যই “Images not Included” লিখে দিতে হবে।


৮। চেষ্টা করবেন ডিজাইনে সব কনটেন্ট English ব্যবহার করতে।


৯। প্রিভিউ ইমেজে পি.এস.ডি , ই.পি.এস এই ধরণের কোনো লেখা ইউজ করবেন না।

১০. ফ্রি পিকের কোনো ধরণের ইলিমেন্ট ( ফ্রি/ প্রিমিয়াম) ডিজাইনে ব্যবহার করবেন না। করলে কপিরাইট ইস্যুতে আপনার একাউন্ট সাসপেন্ড করে দিবে। আপনি চেন্জ করে ব্যবহার করতে পারবেন, তবে ফ্রি-পিক প্রথমে রোবট দিয়ে ডিজাইন চেক করে তাই কোন ধরণের রিক্স না নেওয়াই ভালো।


এইগুলো খুবই কমন ইস্যু। এগুলো অবশ্যই ভালোভাবে লক্ষ্য রাখবেন। এই কয় দিনে মার্কেট রিসার্স ও ফ্রি-পিকে আমার যেগুলো ডিজাইন রিজেক্ট হয়েছে যেগুলো এনালাইসিস করে এই কারণগুলো পেলাম। যার মধ্যে অনেক ডিজাইন সংশোধন করে আবার এপ্রুভ করাতে পেরেছি- আলহামদুলিল্লাহ।
মোটামোটি বুঝলেন, তারপরেও মনে হচ্ছে ১ টা বিষয় ক্লিয়ার না। তা হলো কম্পোজিশনের কারণে রিজেক্ট হওয়া।

এই কম্পোজিশন নিয়ে আবু নাসের ভাইয়ের ৩পর্বের ভিডিও আছে। এগুলো দেখবেন সম্পূর্ণ ধারণা পেয়ে যাবেন।

ফ্রিপিক বিষয়ক অন্যান্য আরটিকেল সমূহ

ফ্রিপিকে সবচেয়ে সহজ উপায়ে ডিজাইন এপ্রুভ করিয়ে মার্কেটপ্লেসে কাজ শুরু করার উপায়

প্যাসিভ আর্নিং…কোন মার্কেটপ্লেসের উপর ফোকাস করবেন?

ফ্রিপিক যেসকল কারনে ডিজাইন রিজেক্ট করে

ফ্রিপিক অথর গাইডলাইন সাথে ১০০০ টাকার ফ্রি ওয়েব ডিজাইন কোর্স

Share:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Get monthly free recourse

Subscribe To Our Monthly Update

No spam, notifications only about new products, updates.

ফিচার্ড প্রোডাক্ট সমূহ

ফিচার্ড আর্টিকেল

বিষয় ভিত্তিক আর্টিকেলস

On Key

Related Posts

Shopping Cart