fbpx
Home ব্লগ পেমেন্ট মেথড জেনেনিন কিভাবে অনলাইনে আয় করা টাকা পকেটে ঢুকাবেন
Payment methods for Bangladeshi freelancers

জেনেনিন কিভাবে অনলাইনে আয় করা টাকা পকেটে ঢুকাবেন

ফ্রীলাঞ্চিং নিয়া সবারই কম বাসি আগ্রহ, আমারকাছে যখন নতুন কেউ ফ্রীলাঞ্চিং নিয়া জানতে চায় তাদের প্রশ্ন গুলো অনেকটা এমনঃ
অনলাইনে কি আসলেই টাকা আয় করা যায় ?
কি কি কাজ জানতে হয় টাকা উপার্জন করতে হলে?
> অনলাইনের টাকা আপনার পকেটে আসে কিভাবে?

নতুনের ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কিত সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্যেই আমার ব্লগ লেখা শুরু, প্রথম ২ টি প্রশ্নের উত্তর নিশ্চয়ই পায়েগেছেন আগের ব্লগে, তাই আজকের মূল্য বিষয় কিভাবে ইউরোপ আমেরিয়াকার টাকা আপনার হস্তগত করবেন |

ফ্রিল্যান্সিং এর টাকা কিভাবে আমার হাতে আসে এই প্রশ্নের উত্তরে আমি বরাবর যেই উত্তর দিয়েথাকি তা হচ্ছে, টাকা আয় করতে পারা টা মূল্য বিষয়| যে টাকা আয় করতে জানে সে পৃথিবীর শেষ প্রান্তের টাকা হাতে এনে তা দিয়া পুরাণ ঢাকার নান্নার বিরানি ও খেতে জানে|

এইবার যেনে নেয়া যাক সেই টাকা আসে কোন পথে? বিমানে? নাকি জাহাজে?

১) আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

জি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এর কথাই বলছি, যেকোনো লোকাল ব্যাংক যেমন, DBBL, ব্রাক ব্যাংক, ইসলামি ব্যাংক, EBL ইত্যাদি | প্রায় সবকটি অনলাইন মার্কেটপ্লেসই ‘WIRE Transfer’ এর মাধ্যমে লোকালব্যাংক এ টাকা ট্রান্সফার সুবিধা দিয়ে থাকে| এর জন্যে আপনার প্রজন হবে মার্কেটে প্লেসে যেই নামে রেজিস্টার করা একই নামের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, অ্যাকাউন্ট নাম্বার, উক্ত ব্রাঞ্চ এর SWIFT Code  এবং ব্যাংক এর ঠিকানা| টাকা আসতে ১ থেকে ৬ কর্ম দিবস লেগেযেতে পারে|

 

২) Payonnner MasterCard

আমি বেক্তিগত ভাবে এই মেথডটি টাকা আনার ক্ষেত্রে বেশি ব্যাবহার করে থাকি| MasterCard একছেপট্ট  এমন যেকোনো ATM বুথ থেকে টাকা তোলা যাবে, পৃথিবীর যেকোনো দেশ থেকে টাকা তোলা যায়, শপিং করতে পারবেন সকল অনলাইন স্টোরে| এই কার্ড এর সাথে আপনাকে একটি আমেরিকান ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, একটি ইউরোপিয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট দেওয়া হবে, যার ফলে যেই মার্কেট প্লেস লোকাল ব্যাংক ট্রান্সফার থাকবেনা সেইখানে US ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যাবহার করতে পারবেন| সকল জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেসে US Bank Transfer সুবিধা থাকবেই| তাছাড়া আমেরিকা অথবা ইউরোপের কোন বায়ারের কাজ যদি সরাসরি করেথাকেন তিনি তার  বিজনেস অ্যাকাউন্ট থেকে আপনার US ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করলে তা আপনার কার্ড এ আসে জমা হবে|

এইবার আশা যাক কিভাবে পাবেন একটি MasterCard, আর যেইটি হাতে পাওয়া পর্যন্ত কোন টাকাই খরচ করতে হবে না|
এই লিংক এ গিয়া রেজিস্টার করুনঃ Apply for MasterCard
কার্ডটি হাতে পাওয়ার পর আপনি যখন কার্ড এ টাকা ট্রান্সফার করবেন তখন আপানার কাছ থেকে $29 কাটে নেওয়া হবে কার্ড এর মূল্য| রেজিস্টার করার পর আপনাকে $25 গিফট হিসাবে দেওয়া হবে, যার ফলে কার্ড একটিভেশন করার $29 এ আপনার নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে যাবে $4|
রেজিস্টার করার সময় সব তথ্য সঠিক দিবেন যাতে আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড বা লোকাল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এর সাথে সাথে সব মিলে, যেমন নাম, জন্ম তারিখ ইত্যাদি| আর সঠিক ঠিকানা তো দিতেই হবে, না হয় আমার এড্রেস ও দিতে পারেন 😀 আপনার কার্ড আমার বাসায় চলে আসবে!

আপনি এখনো অনলাইনে কাজ শুরু করেননি তাতে সমস্যা নাই| কার্ড  এর জন্যে অ্যাপ্লাই করার পর তারা যদি জানতে চায় কোথায় কার্ড ব্যাবহার  করবেন, সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার UpWork বা অন্য মার্কেট প্লেস এর প্রোফাইল এর লিংক দিতে পারেন, তাতে তারা সিউর হতে পারবে যে ফ্রীলাঞ্চিং করেন| আমি Payonner MasterCard পাই ২০১০ শালে আর টাকা আয় শুরু করি ২০১২ তে | এর আগে টাকা ছাড়া MasterCard নিয়া ভাব মারতাম 😀

ট্রান্সফার করা টাকা আপনার কার্ড এ জমা হবে ২ দিন পর, কেউ যদি সাথে সাথেই কার্ডে টাকা লোড করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনাকে গুনতে হবে $2-$5, আর US ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে টাকা আসলে কার্ড এ জমা হতে সময় লাগবে ২ দিন, ফি হহিশাবে দিতে হবে 1% | পরবর্তী একটি ব্লগে Payoneer MasterCard এর বিস্তারিত তথ্য ও তাদের সার্ভিস ফি নিয়া লিখবো| কোন প্রশ্ন থাকে কমেন্ট করবেন তাতে পরবর্তী ব্লগ লিখতে সুবিধা হবে|

 

৩) Skrill

বাংলাদেশে PayPal এর বিকল্প হচ্ছে Skrill, এইটি একটি অনলাইন ব্যাংক| UpWork, Envato সহ আরও  অনেক  জনপ্রিয় ওয়েবসাইট থাকে Skrill এর মাধ্যমে টাকা তুলতে পারেন| Skrill দিন দিন অনেক জনপ্রিয় হচ্ছে, স্ক্রিল দিয়া আপনি জনপ্রিয় সব অনলাইনে স্টোরে কিনাকাটা করতে পারবেন| যেমন Domain Hosting কিনা, Skype ক্রেডিট কিনা ইত্যাদি|
এই লিংক এ গিয়া রেজিস্টার করুনঃ Apply for Skrill
যেমনটা একটু আগেই বললাম, রেজিস্টারের সময় সকল তথ্য সঠিক দিবেন, অন্যথা  টাকা তোলার সময় বিপদে পড়বেন| কোথাও ভুল তথ্য না দেওয়াই উত্তম তাইনা ? আপনি আপনি-ই থাকলেন, অন্য কেউ হলেন্না, এই আরাকি !
আমার কাছে Skrill এর সার্ভিস চার্জ Payoneer এর তুলনায় বেশি মনেহয়, আবার কারো কারো কাছে এইটাই বেস্ট অপশন|
মার্কেট প্লেস থেকে ট্রান্সফার করা টাকা জমা হবে সাথে সাথেই, তবে Skrill থাকে আপনার লোকাল ব্যাংক এ আসতে সময় লাগতে পারে ৩ থাকে ৭ কর্ম দিবস|

 

PayPal নিয়া একটু বলি, PayPal এর নাম শুনেনাই এমন লোক খুব কমই পাওয়া যাবে, যদিও PayPal এর সার্ভিস বাংলাদেশে এখনো শুরু হয় নি| আপনার Payoneer MC থাকলে PayPal এর প্রয়োজন হবে না, আমি আপনাকে এই বিশয়ে নিশ্চয়তা দিতে পারি| আপনি পেয়নিয়ার থেকে ইনভয়েস পাঠাবেন, পৃথিবীর যে কেও আপনাকে সরাসরি CreditCard দিয়া পে করতে পারবে|
তবে কেউ কেউ অন্য দেশের এড্রেস দিয়ে PayPal ব্যাবহার করে, যেটা মটেও নিরাপদ না, যেকোনো সময় অ্যাকাউন্ট ব্লক হয়ে জেতে পারে| ব্লক হলে আপনার টাকা খাবে আমেরিকানরা 😀

আপনার মতামত বা কোন প্রশ্ন থাকেলে কমেন্ট করুন 🙂

 

 

Share:

Related Post

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x
How would like to contact us?